পেঁয়াজের দামে হঠাৎ বেড়ে গেলখুন করে পালানোর সময় ‘খুনিকে’ও পিটিয়ে হত্যাদাউ দাউ করে জ্বলছে আমাজানের মহাবনকাশ্মীরে নজর ট্রাম্পের, বৈঠকে কথা হবে মোদীর সঙ্গেবঙ্গবন্ধুর খুনিদের কেন পালানোর সুযোগ দিলেন জিয়া
No icon

ইরানের সঙ্গে যুদ্ধের প্রস্তুতি চলছে : ইসরায়েল

সাথে যুদ্ধ আসন্ন বলে মন্তব্য করেছেন ইসরায়েলের আঞ্চলিক সহযোগিতাবিষয়ক মন্ত্রী জাচি হানেজবি। তিনি বলেছেন, আগামী দুই বছরের মধ্যে ইরান ও ইরানের সামরিক বাহিনীর সঙ্গে সম্ভাব্য সঙ্ঘাতের জন্য প্রস্তুত হচ্ছে ইসরায়েল। ইসরায়েলি মন্ত্রিসভার এই সদস্য বলেছেন, ইরানের সঙ্গে একটি সামরিক সঙ্ঘাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এটি হবে কি-না সেটি সময়ই বলবে। তার দাবি, ইরানের সাথে যুদ্ধের বিষয়টি ইতোমধ্যে প্রক্সি যুদ্ধ থেকে সরাসরি যুদ্ধের দিকে মোড় নিয়েছে। এখন ইরান ও আমাদের (ইসরায়েল) মধ্যে একটি প্রত্যক্ষ অথবা পরোক্ষ যুদ্ধ হবে। এটি এড়ানো অসম্ভব। তবে এই যুদ্ধ হবে ভয়ঙ্কর।

সিরিয়া ইস্যুতে হানেজবি বলেন, সিরিয়ায় ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) অধীনে ১০ হাজার যোদ্ধা লড়াই করছে। ধারণা করা হচ্ছে, সম্প্রতি লেবাননের লড়াইরত গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ এক লাখ ৬০ হাজার রকেট সেখানে মজুত করেছে।

যুদ্ধের ব্যাপারে তিনি বলেন, ইসরায়েল যুদ্ধ না করেও তার খেসারত আর দিতে পারবে না, এর অর্থ হচ্ছে সিরিয়ায় ইরানকে তাদের অবস্থান নড়বড়ে করে দেয়ার জন্য একটি সবুজ বার্তা দেয়া। আমরা তাদের অবস্থান ক্ষতিগ্রস্ত করব; নতুবা আমাদের সীমান্তের কাছে একটি সন্ত্রাসী রাজ্য গড়ে উঠবে।

ইসরায়েলি এই মন্ত্রী বলেন, আমরা ইরানকে এটা মনে করিয়ে দিতে চাই যে, সিরিয়ায় তাদের অবস্থান উপকারী নয়। সেখানে তাদের (ইরানের) পুনরায় অবস্থান ঠিক করে নেয়ার কোনো আশা নেই। তাদের এটা অবশ্যই মনে রাখতে হবে যে, আমরা ইরানকে দমন করব।

ইরানের সঙ্গে সরাসরি সঙ্ঘাতের ব্যাখ্যা দিয়ে হানেজবি বলেন, আমরা তাদের ওপর আঘাত হানব এবং তারা জবাব দিলেও আমাদের ক্ষয়ক্ষতি করতে পারবে না। ইরানিরা ইরাক অথবা লেবানন থেকে রকেট ছুড়তে সক্ষম; নিজ দেশ থেকেও। কিন্তু আমরা তাদের সব সঙ্ঘাত শেষ করে দেব বিজয়ের মাধ্যমে। সব ধরনের হুমকি থেকে কী ভাবে নিজেদের রক্ষা করতে হয় সেটি আমরা জানি। আমাদের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা আছে, যেটি তাদের নেই।