পেঁয়াজের দামে হঠাৎ বেড়ে গেলখুন করে পালানোর সময় ‘খুনিকে’ও পিটিয়ে হত্যাদাউ দাউ করে জ্বলছে আমাজানের মহাবনকাশ্মীরে নজর ট্রাম্পের, বৈঠকে কথা হবে মোদীর সঙ্গেবঙ্গবন্ধুর খুনিদের কেন পালানোর সুযোগ দিলেন জিয়া
No icon

‘পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলির সময়’ পদ্মায় ডুবে ‘মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত

রাজশাহী নগরীর কাশিয়াডাঙ্গা থানা এলাকায় পুলিশের সঙ্গে গোলাগুলির সময় পালাতে গিয়ে এক মাদক ব্যবসায়ী নদীতে ডুবে নিহত হয়েছেন বলে দাবি করছে পুলিশ। গতকাল সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ৩টার দিকে নবগঙ্গা ৫ নম্বর আই বাঁধ এলাকায় পদ্মা নদীতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম আমিন। পুলিশের দাবি, আমিন ওই এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ছিলেন। আমিনের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে করা পাঁচটি মামলাসহ মোট ছয়টি মামলা রয়েছে বলেও দাবি পুলিশের। রাজশাহী মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপকমিশনার (এডিসি) রুহুল আমিন ও কাশিয়াডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর আলী আরিফের ভাষ্যমতে, নবগঙ্গা ৫ নম্বর আই বাঁধ এলাকার পদ্মাপাড়ে দুই দল মাদক ব্যবসায়ী মাদক কেনাবেচা করছিল বলে খবর পায় পুলিশ। এ সময় কাশিয়াডাঙ্গা থানা পুলিশের একটি দল তাদের ধরতে ঘটনাস্থলে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি ছুড়লে পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে। একপর্যায়ে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় পুলিশের তিনজন উপপরিদর্শক (এসআই) আহত হয়েছেন বলে দাবি করছেন ওসি মনসুর আলী।

ওসি আরো দাবি করেন, গোলাগুলি থেমে গেলে পুলিশ আশপাশে তল্লাশি শুরু করে। এ সময় পদ্মার পানিতে মাদক ব্যবসায়ী আমিনকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। তাঁকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি মনসুর আলী জানান, আমিনের শরীরে গুলির কোনো চিহ্ন নেই। তাই ধারণা করা হচ্ছে, গোলাগুলির সময় পানিতে ডুবে তাঁর মৃত্যু হয়েছে।

ময়নাতদন্তের জন্য আমিনের মরদেহ মর্গে রাখা হয়েছে। গোলাগুলির পর ঘটনাস্থল থেকে ৭৯ বোতল ফেনসিডিল, দেশি তৈরি একটি শুটার গান ও দুটি গুলি জব্দ করা হয়।