বাঁশে ঝুলিয়ে যুবককে নির্যাতন, ধরা পড়লেন সালাম মেম্বারযৌন হয়রানির দায়ে টেনিস ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক বহিষ্কারআইনমন্ত্রীর সঙ্গে আবরারের বাবার সাক্ষাৎচালকদের দাবিগুলো মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী‘গোলাপি টেস্ট’ দেখতে কলকাতা যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
No icon

সরকার দেশকে রক্তপাতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে: অলি আহমদ

সরকার ক্রমান্বয়ে দেশকে রক্তপাতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ২০ দলীয় ঐক্যজোটের মুখপাত্র ও এলডিপির সভাপতি কর্নেল (অব.) অলি আহমদ বীর বিক্রম।  সোমবার দুপুরে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে জোটের এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন। তিনি বলেছেন, আমরা শান্তি চাই। কিন্তু সরকার আশান্তি চাইছে। দেশকে তারা ক্রমশ রক্তপাতের দিকে, ধ্বংসের ঠেলে দিচ্ছে। বর্তমানে যে পরিস্থিতি বিরাজ করছে সেটা পাকিস্তান আমল এবং জার্মানির হিটলারকেও হার মানিয়েছে উল্লেখ করে অলি আহমদ বলেন, পরিস্থিতি এতই খারাপ যে, নির্বাচন সংশ্নিষ্ট অফিসাররা পর্যন্ত আমাদের ফোন ধরছেন না। তারাও ভয়ে আছেন। রিটার্নিং অফিসারের সাথে কথা বলতে পারি না। তাহলে আমরা কোথায় যাবো।

তিনি বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও ১০ দলীয় ঐক্যজোট কারো বিরুদ্ধে নয়। আমরা চাই, জনগণ যাতে সুষ্ঠুভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন। এখানে অন্যকোন বিষয় নেই।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ্য করে অলি আহমদ বলেন, আপনি বঙ্গবন্ধু কন্যা। সুষ্ঠু নির্বাচন দিন। আপনাকেও এক সময় বিদায় নিতে হবে। দেশকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দিবেন না।

তিনি আরো বলেন, আমরা আজ নিজ দেশে পরাধীন। আমাদের বিরুদ্ধে একের পর এক মিথ্যা ও গায়েবি মামলা দেওয়া হচ্ছে। জামিন পাওয়ার সময় নতুন নতুন মামলায় জড়ানো হচ্ছে। যারা মামলা দিচ্ছেন তারা কী সৃষ্টিকর্তাকে ভয় পান না। যারা আগে এ ধরনের কাজ করেছেন তাদের অনেকের ছেলে-মেয়ে, স্ত্রীদের অপমৃত্যু ঘটেছে। নিম্ন আদালতে জামিন না হলে জজ কোর্টে গেলে সেখানেও বিলম্ব করা হচ্ছে। 

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, সাত দফা দাবি না মানার পরও আন্দোলনের অংশ হিসেবে আমরা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। তবে সুষ্ঠু নির্বাচন নিয়ে জাতি সন্দিহান।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, সরকার আমাদের নির্বাচন করার মতো ন্যুনতম সুযোগ দিচ্ছে না। আইন সরকারের জন্য এক রকম, আমাদের জন্য অন্যরকম। এরপরও এবার আমরা ঘরে বসে থাকবো না। কর্মীরা নয়, আমরাই এবার সামনে থাকবো। মানুষও বাধা মানবে না। মরেছিতো মরেছি। আর ভয় করি না।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কল্যাণ পাটির সভাপতি মেজর জেনারেল (অব.) সৈয়দ মুহাম্মদ ইব্রাহিম, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি জাফরুল ইসলাম চৌধুরী, নগর বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান, বিএনপি নেতা এনামুল হক, সহ সভাপতি সরোয়ার জামাল নিজাম, বিএনপি নেতা কর্নেল (অব.) আজিম উল্লাহ বাহার, নুরুল আমিন, এলডিপি নেতা নুরুল আলম। তারা সবাই চট্টগ্রামের বিভিন্ন আসনে জোট মনোনীত প্রার্থী।

এছাড়া সংবাদ সম্মেলনে নগর বিএনপির সভাপতি ও চট্টগ্রাম-৯ (কোতোয়ালি-বাকলিয়া) আসনে দলের প্রার্থী কারাবন্দী ডা. শাহাদাত হোসেনের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট বদরুল আনোয়ারসহ বিএনপির সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন।