২৪ ঘণ্টা নজরদারির আওতায় ফেসবুক, ইউটিউবজাতিসংঘ মহাসচিবকে চিঠি দিয়ে যা বলল তালেবান৫ অক্টোবরই খুলছে ঢাবির হল১২-১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের ফাইজারের টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু
No icon

প্রতিদিন চায়ের কাপে তুলুন তুফান, ত্বক হয়ে উঠবে আরও সুন্দর

ডিজিটাল ডেস্ক: বাইরে বৃষ্টি পড়ছে কিংবা ধরুন রোদ উঠে ফুটিফাটা দশা। আবার ধরুন মন খারাপ বা হঠাৎ কোনও আনন্দের খবর পেলেন। কিংবা হতে পারে আপনি বন্ধুদের সঙ্গে জমিয়ে আড্ডা দিচ্ছেন। পরিস্থিতি যেরকমই হোক না কেন বাঙালির চা-প্রেম কমবে না। আপনারও অবস্থা নিশ্চয়ই একইরকম? চায়ের কাপে ঠোঁট ডুবিয়ে গলা না ভেজা পর্যন্ত মন ভরে না। এই যে কথায় কথায় চা (Tea) খাচ্ছেন, তাতে আপনার ত্বকের উপর ঠিক কেমন প্রভাব পড়ছে, তা জানেন? এই রে নিশ্চয়ই ভাবছেন ত্বকের দফারফা হচ্ছে। মোটেই না পরিবর্তে বিপরীত কথাই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।
মানসিক অবসাদ, ক্লান্তি আমাদের তিলে তিলে শেষ করে দেয়। শরীরের নানারকম ক্ষতির কারণ হয়ে উঠতে পারে মানসিক অবসাদ আর ক্লান্তি। অনেক ক্ষেত্রে তা হয়ে উঠতে পারে প্রাণঘাতীও। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এক কাপ সুস্বাদু চা নিমেষেই আপনার ক্লান্তি দূর করতে পারে। মানসিক অবসাদ কাটিয়ে আপনি হয়ে উঠতে পারেন ফুরফুরে মেজাজের অধিকারিণী। আর আপনার মেজাজ ভাল মানে ত্বকও যেন খিলখিল করে হেসে উঠবে। বাড়তি কোনও কষ্ট না করেই আপনার ত্বক হয়ে উঠতে পারে আরও সুন্দর ও ঝকঝকে।
চা আমাদের শরীরে রক্ত সঞ্চালনা বাড়িয়ে দেয়। রক্ত সঞ্চালন বেশি হলে ত্বক যে স্বাস্থ্যকর হয়ে উঠবে সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

চা ব্রণর সমস্যা দূর করে। যাঁরা অত্যন্ত চা খান তাঁরা সচরাচর ব্রণর সমস্যায় ভোগেন না বলেই দাবি বিশেষজ্ঞদের। তাই ব্রণর সমস্যা থাকলে একটু চা পানের অভ্যাস করতে পারেন। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ঠকবেন না। ফল মিলবে হাতেনাতে।

চায়ে প্রচুর পরিমাণ অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে। তার ফলে ত্বকের যেকোনও জীবাণু সংক্রমণ জাতীয় সমস্যা দূর করতে সহায়ক চা। তাই প্রতিদিন চায়ের কাপে ঠোঁট ভেজান। আর পান নরম ও ঝকঝকে ত্বক। কে বলতে পারে এই কারণেই হয়তো আপনি হয়ে উঠলেন সকলের ঈর্ষার কারণ।