করোনা ভ্যাকসিন না নিলে অ্যাটর্নি কার্যালয়ের কর্মীদের বেতন বন্ধ!ফের ৮ দিনের রিমান্ডে হেলেনা জাহাঙ্গীরভ্যাকসিন ছাড়া ১৮ ঊর্ধ্ব কেউ বাইরে বের হলেই সাজা১০ আগস্ট পর্যন্ত বাড়লো বিধিনিষেধ ১১ আগস্ট থেকে খলছে দোকানপাট
No icon

যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ স্বীকৃতি পাচ্ছেন শেখ হাসিনা

জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশের অবদানের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ স্বীকৃতি পেতে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।আজ শুক্রবার ঢাকার মার্কিন দূতাবাস এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জানায়, আগামী ২২-২৩ এপ্রিল, প্রেসিডেন্ট জোসেফ বাইডেনের লিডার্স সামিট অন ক্লাইমেট-এর প্রস্তুতির অংশ হিসেবে জন কেরি ঢাকা সফর করছেন। জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে ঝুঁকিতে থাকা দেশগুলোর নেতৃত্বে বাংলাদেশের অবদানের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে লিডার্স সামিট অন ক্লাইমেট এ বিশেষ স্বীকৃতি দেওয়া হবে।বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, প্রেসিডেন্টের বাইডেনের জলবায়ু বিষয়ক বিশেষ দূত জন কেরি জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব প্রশমন ও অভিযোজনের প্রয়াসে বাংলাদেশ এবং অন্য ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর সঙ্গে অংশীদারত্বের জন্য সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা করতে শুক্রবার (৯ এপ্রিল) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন, পরিবেশমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন, ভালনারেবল ফোরাম প্রেসিডেন্সির বিশেষ দূত আবুল কালাম আজাদ, সংসদ সদস্য সাবের হোসেন চৌধুরী এবং আন্তর্জাতিক অংশীদারদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, জলবায়ু সংকট রোধে প্রশমন ও অভিযোজনকে সহায়তা দিতে এবং সমৃদ্ধিকে সমর্থন জোগাতে বিনিয়োগ দরকার। এই বিনিয়োগ সংগ্রহের জন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও বেসরকারি খাতের সঙ্গে নিবিড়ভাবে কাজ করবে যুক্তরাষ্ট্র।যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মিলারের বরাত দিয়ে বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আপনারা আগেও দেখেছেন এবং অব্যাহতভাবে দেখবেন যুক্তরাষ্ট্র কীভাবে জলবায়ু পরিবর্তনকে আমাদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপক্ষীয় এবং বহুপক্ষীয় আলোচনার সব পর্যায়ে যুক্ত করছে।সাক্ষাৎ শেষে বিকাল ৫টা ৪৮ মিনিটে জন কেরি ঢাকা ছাড়েন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী তাকে বিমানবন্দরে বিদায় জানান।