বঙ্গোপসাগরে তৈরি হচ্ছে নিম্নচাপ, বাড়তে পারে বৃষ্টিশাহজালাল বিমানবন্দরে স্বর্ণসহ যাত্রী আটকভারতকে নিষিদ্ধ করলো ফিফাসরকারের ঋণ বেড়েছে এক লাখ কোটি টাকার বেশি২৪ ঘণ্টায় একজনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়
No icon

অ-ব্যাংকিং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর ত্রুটিমুক্ত আর্থিক বিবরণী তৈরির নির্দেশনা

ত্রুটিমুক্ত ও সঠিক আর্থিক বিবরণী তৈরির জন্য নির্ভুল তথ্য পাঠাতে ব্যাংক-বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত একটি সাকুর্লার জারি করা হয়েছে।এতে বলা হয়েছে, আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন, ১৯৯৩ এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠান প্রবিধানমালা, ১৯৯৪ (জুন, ২০০৩ পর্যন্ত সংশোধিত)-এর ধারা ১২ মোতাবেক আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো পরিসংখ্যান বিভাগে ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে এনবিএফআই-২ ও এনবিএফআই-৩ বিবরণী দাখিল করে আসছে। দেশের আর্থিক পরিকল্পনার ক্ষেত্রে বিবরণীগুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ তাই তথ্য-উপাত্তগুলো নির্ভুল হওয়া অত্যাবশ্যক। এমন অবস্থায় আর্থিক বিবরণী সঠিক ও ত্রুটিমুক্ত করতে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।এর মধ্যে রয়েছে, গ্রাহকের নতুন হিসাব খোলার সময় এনবিএফআই-২ ও এনবিএফআই-৩ রিপোর্টিং ফর্ম (সংযুক্ত) পূরণ করতে হবে। যা অ্যাকাউন্ট ওপেন ফরমের সঙ্গে সংযুক্ত আকারে সংরক্ষণ করতে হবে।এছাড়াও প্রতি ত্রৈমাসিকের বিবরণী পরবর্তী মাসের ২০ তারিখের মধ্যে ওয়েবসাইটে আপলোড করতে হবে।

যেখানে ব্যবস্থাপনা পরিচালকের সই থাকতে হবে। তবে এমডি অনুপস্থিতিতে দায়িত্বপ্রাপ্ত ও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ কর্মকর্তাসহ দুইজন কর্মকর্তার স্বাক্ষরসহ বিবরণী দাখিল করতে হবে।শাখা ও প্রধান কার্যালয়ে কর্মরত অভিজ্ঞ ও দক্ষ কর্মকর্তা দ্বারা অ্যাকাউন্ট ওপেনিং ফরম পূরণ এবং উল্লেখিত যথাসময়ে নির্ভুলভাবে দাখিলের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। প্রতি মাসের আমানত ও আগামের সুদ ও মুনাফা হারের বিবরণী পরের মাসের ১০ তারিখের মধ্যে আপলোড করতে হবে।বাংলাদেশ ব্যাংকে বিবরণী দাখিলের সময় নতুন শাখার কার্যক্রম চালু হওয়ার ৭ কর্মদিবসের মধ্যে শাখা কোডের জন্য আবেদন করতে হবে।প্রতি বছর ৩১ ডিসেম্বর ভিত্তিক শাখার তালিকা পরের বছরের জানুয়ারি মাসের ১০ তারিখের মধ্যে পাঠাতে হবে।সরকারি এবং বেসরকারি ব্যাংক-বহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর যেকোন ধরণের পরিবর্তন ও রুপান্তরের ক্ষেত্রে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে অবহিত করতে হবে।