গাজীপুরে টেক্সটাইল মিলের গুদামে আগুন,আরও একটি উপশহর করতে যাচ্ছে রাজউকসোনালী ব্যাংকের খেলাপি ঋণ যথেষ্ট উদ্বেগজনকব্রাজিলের ঐতিহাসিক জয়ে টিএসসিতে সমর্থকদের উল্লাসকুমিল্লার ৫ ইউপিতে ভোটগ্রহণ চলছে
No icon

কারিগরি শিক্ষা শুধু নামেই

শিক্ষক সংকটের বৃত্তে দেশের ৪৭ পলিটেকনিক এবং তিনটি মনোটেকনিক ইনস্টিটিউট। ওইসব শিক্ষালয়ে পাঠ্যসূচিও হালনাগাদ হয় না বহু দিন। শিক্ষার্থীর হার নিয়ে রয়েছে লুকোচুরি। কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক নেই- তাও হয়ে গেল আট বছর। কারিগরি শিক্ষা বোর্ডেও বাসা বেঁধেছে দুর্নীতি, অনিয়ম আর অদক্ষতা। এভাবেই ধুঁকে ধুঁকে চলছে কারিগরি শিক্ষা। অথচ কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষা নিয়ে দেশের কর্মসংস্থানে আলো ছড়াতে পারতেন অনেকেই।শিক্ষা মন্ত্রণালয়, কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তর ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের তথ্যানুযায়ী, কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষার্থী ১৬ শতাংশ। এ অর্জনকে তাঁরা মাইলফলক হিসেবেও দেখছেন। একই সঙ্গে আগামী দিনের পরিকল্পনাও নির্ধারণ করেছেন। এর আগে ২০২০ সালের মধ্যে ২০ শতাংশ এবং ২০৩০ সালের মধ্যে ৩০ শতাংশে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। আন্তর্জাতিক কারিগরি শিক্ষার সংজ্ঞা ও সরকারি তথ্য বিশ্নেষণ করে দেখা গেছে, বাস্তবে কারিগরিতে শিক্ষার্থীর হার মাত্র ৮ দশমিক ৪৪ শতাংশ।


জাতীয় শিক্ষা তথ্য ও পরিসংখ্যান ব্যুরোর ২০১৮ সালের তথ্যানুযায়ী, দেশে এখন কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৬ হাজার ৮৬৫টি। এতে মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১০ লাখ ৬৭ হাজার ৪৮৪ জন। তবে কারিগরি শিক্ষা বোর্ড এই শিক্ষার্থীর সঙ্গে তিন থেকে ছয় মাস মেয়াদি শর্টকোর্সের ২ হাজার ৬০০ ট্রেনিং সেন্টারকেও মূল কারিগরি শিক্ষার সঙ্গে যোগ করেছেন। এসব ট্রেনিংয়ে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২ লাখ ৮০ হাজার ৩০১ জন। সেই হিসাবে মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৩ লাখ ৪৭ হাজার ৭৮৫ জন। আর কারিগরিতে শুধু নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়ার সুযোগ রয়েছে। তাই এসব শ্রেণির শিক্ষার্থীর সঙ্গে তুলনা করে কারিগরিতে ১৬ শতাংশ শিক্ষার্থী দেখানো হয়েছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, আন্তর্জাতিক সংজ্ঞানুযায়ী, সাধারণ শিক্ষার মতোই কারিগরিতেও একাডেমিক ও সার্টিফিকেট কোর্স রয়েছে। তবে সার্টিফিকেট কোর্স স্বল্পমেয়াদে হতে পারে। আবার এর ব্যাপ্তি সর্বোচ্চ ৩৬০ ঘণ্টাও হতে পারে। সার্টিফিকেট কোর্স কোনোভাবেই মূল কারিগরি শিক্ষার মধ্যে পড়ে না। এ ছাড়া কারিগরি শিক্ষার আওতায় ২ হাজার ৬১৭ বিজনেস ম্যানেজমেন্ট স্কুল ও কলেজ রয়েছে, যা কোনোভাবেই কারিগরি শিক্ষার মধ্যে পড়ার কথা নয়। ফলে এসব প্রতিষ্ঠানের ৩ লাখ ৩৫ হাজার ২২৫ শিক্ষার্থী বাদ দিলে কারিগরিতে ২০১৮ সালে শিক্ষার্থীর সংখ্যা দাঁড়ায় ৭ লাখ ৩২ হাজার ২৫৯ জন। ওই বছরে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থী ছিল ৮৬ লাখ ৬৬ হাজার ৩৮৯ জন। সেই হিসাবে কারিগরিতে শিক্ষার্থীর হার দাঁড়ায় ৮ দশমিক ৪৪ শতাংশ।